জাতীয় চার নেতার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঃ জুই

0
820

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার পর দ্বিতীয় কলঙ্কজনক অধ্যায়ের সূচনা হয় এই দিনে।১৯৭৫ সালের ৩রা নভেম্বর আওয়ামী লীগের চার জাতীয় নেতা সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম,সাবেক বাংলাদেশী প্রধানমন্ত্রী তাজ উদ্দীন আহমদ,সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আ হ ম কামরুজ্জামানও ক্যাপটেন মনসুর আলীকে ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে নির্মম ও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।

জাতীয় চার নেতা

১.সৈয়দ নজরুল ইসলাম

বাংলাদেশের প্রথম সরকার,মুজিব নগর সরকারের উপ-রাষ্ট্রপতি ও ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি ছিলেন।তিনি বাকশালের ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

২.তাজ উদ্দীন আহমদ

তিনি একজন আইনজীবী,রাজনীতিবিদ ও বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।তিনি সাবেক অর্থ মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যও ছিলেন।

৩.আবু হাসনাত মোহাম্মদ কামরুজ্জামান

একজন সংসদ সদস্য ছিলেন।১৯৭৪ সালে আওয়ামী লীগের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।তিনি ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালীন অস্থায়ী সরকারের স্বরাষ্ট্র,কৃষি এবং ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ছিলেন।

৪.ক্যাপটেন মুহাম্মদ মনসুর আলী

মুজিব নগর সরকারের অর্থ মন্ত্রী ছিলেন।বঙ্গবন্ধু কর্তৃক বাকশাল প্রতিষ্ঠার পর তিনি বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী ছিলেন।

পরিশেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই ও তাদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করি।
লেখকঃ
প্রবাসী জুই তাজুলী ফেরদৌসী (পীরগঞ্জ)
মরহুম এম,পি আব্দুল জলিলের কন্যা,

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 1 =