জীবনের ঝুঁকি নিয়েই কাজ করছে পীরগঞ্জ পুলিশ!

0
144

রাজু মন্ডলঃ
রংপুরের পীরগঞ্জে করোনার উদ্ভুত পরিস্থিতিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই কাজ করছে থানা পুলিশ। স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন স্থরের সমন্বয়হীনতার কারণে আরো বিপাকে পড়েছেন তারা।
থানা সূত্রে জানা যায়, পীরগঞ্জের ১টি পৌরসভাসহ মোট ১৬টি ইউনিয়নে প্রায় ৬ লাখ বাসিন্দার বিপরীতে মোট ১২০জন জনবল নিয়ে কাজ করে। এরমধ্যে সদর থানায় ১জন অফিসার্স ইনচার্জ, ১জন ওসি তদন্ত,১জন ওসি পরিদর্শক,এসআই,২০জন,এএসআই ১৬জন এবং কনেস্টেবল ৬১জন মোট ১০০জন এবং ভেন্ডাবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রে এসআই ২জন,এএসই ২জন এবং কনেস্টেবল ১৬জন মোট ২০জন। সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে তেমন কোন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই তাদের। এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দের সাথে কথা বলে জানা যায়,তারপরও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অর্পিত দায়িত্ব পালন করছেন তারা। তেমন কোন সুরক্ষার ব্যবস্থা না থাকলেও ব্যক্তিগতভাবে তৈরি করা হয়েছে এপ্রোন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই ছুটে বেড়াচ্ছে মাটে ঘাটে। ওসি আরো জানান, কোনভাবেই জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা যাচ্ছে না। করোনা কে কোন গুরত্বই দিচ্ছে না সাধারণ মানুষ। এদিকে সারা বিশ্ব যখন করোনার আতংকে আতংকিত তখনো মানুষ অতি তুচ্ছ বিষয়ে বিবাদ করে মামলার জন্য থানা এসে ভীড় করছে। ওসি সরেস চন্দ্র আরো বলেন,পুরো চাপ পড়েছে থানা পুলিশের উপর। সব দপ্তর থেকে ছোট খাটো বিষযে ওসি কে দেখিয়ে দেয়ায় বিড়ম্বনায় পড়ছে থানা পুলিশ। এদিকে উপজেলা প্রশাসনের কারণে নানাভাবে হয়রানীর শিকার হচ্ছে তারা। অপারেশনের নামে পুলিশ টিম গঠন করতে বলেও ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করায়ে বসিয়ে রাখা হচ্ছে পুলিশ কে। জরুরি প্রয়োজনে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে ওসি সরেস চন্দ্র জানান,৫সদস্যের কুইক রেসপন্স টিম গঠন করা হয়েছে,যাদের পিপিই আছে এবং আছে সুরক্ষা ব্যবস্থা। এদিকে সরেজমিন বিভিন্ন মহলের সাথে কথা বলে জানা যায়,করোনা নিয়ে প্রথম দিকে তোড়জোর থাকলেও বর্তামানে অনেকটাই স্থবির হয়ে পড়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সামাজিক দূরত্ব মানাসহ নানা বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণা চালালেও নিজেইরা মানছে না তা। জনসমাগম ঘটিয়ে বিতরণ করছে ত্রাণের সিলিপ এবং ত্রাণ। দুই তিন দিন ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় জীবণুনাশক স্প্রে করলেও এখন তা পুরোপুরিই বন্ধ। এদিকে হাজার হাজার মানুষ ঝুঁকিপূর্ণ ঢাকা-নারায়নগঞ্জসব বিভিন্ন এলাকা থেকে পীরগঞ্জে এসে অবাধে ঘুওে বেড়াচ্ছে। সবমিলে পীরগঞ্জ করোনার ঝুঁকিতে রয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মন্ডল এবং পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম জানান,যথাসাধ্য চেষ্টা করা হচ্ছে সব বিষয়ে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টিএমএ মমিন জানান, আমরা সরকারি নির্দেশ মত কাজ করে যাচ্ছি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

four − three =