পাকিস্তানের সাথে খেলতেই হবে ভারতকে

0
1488

স্পোর্টস ডেস্ক: রাজনৈতিক বৈরিতার জেরে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলছে না ভারত। এতে বড় ধরনের আর্থিক লোকসানের সম্মুক্ষীণ হচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাই চিরশত্রুদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতে বরাবরই আগ্রহ জানিয়ে আসছে পাকিস্তান। তবু রাজি হচ্ছে না ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।

এ নিয়ে আইসিসি সমস্যা সমাধান কমিটিতে মামলা করেছে পাকিস্তান। বিষয়টি নাকি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখভাল করছে এ কমিটি। জানালেন পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি।

কলকাতায় সদ্য সমাপ্ত আইসিসির বৈঠক শেষ করে পাকিস্তানে ফিরে গেছেন শেঠি। দেশে ফিরেই এ চাঞ্চল্যকর তথ্য জানালেন তিনি।

পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে খতিয়ে দেখছে আইসিসির সমস্যা সমাধান কমিটি। এ নিয়ে তাদের দেয়া যে কোনো সিদ্ধান্ত আমরা মেনে নেব। তবে আমাদের পক্ষে যদি রায় আসে, তা হলে ২০১৯-২০২৩ সালের সফরসূচিতে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ রাখতে হবে ভারতকে। এক্ষেত্রে সেই সিরিজ অবশ্যই খেলতে হবে।

রোববার করাচিতে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আগামী অক্টোবরে ভারত-পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে এ কমিটি। আমাদের পক্ষে ফল এলে ভারতকে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতেই হবে।

পাকিস্তান বোর্ড জানিয়েছে, ২০১৪ সালে পাকিস্তানের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সই করে ভারত। সেই অনুযায়ী, ২০১৫-২৩ মেয়াদে দুই দেশের মধ্যে ৬টি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে কয়েকটি সিরিজ খেলা হয়নি। এতে আমাদের ৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে। সেই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

অবশ্য আইসিসিকে ভারতীয় বোর্ড জানিয়েছে, দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে কোনো সমঝোতা হয়নি। এ তথ্য ঠিক নয়। পাকিস্তান বোর্ডের সঙ্গে মৌখিক আলোচনা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকার এ ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিলেই তাদের সঙ্গে সিরিজ আয়োজন সম্ভব।

নাজাম শেঠি দাবি করেন, ২০১৪ সালে দুই বোর্ডের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হয়। তা অনুযায়ী, ২০১৫-২৩ সালের মধ্যে ৬টি সিরিজ খেলার কথা চূড়ান্ত হয়। এখন ভারত তা অস্বীকার করলেও আইনি কাগজপত্র পেশ করা হয়েছে। আইনি লড়াইয়ে জিতলে ক্ষতিপূরণ পাবই।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

five × 3 =