সভ্য ও অসভ্য

0
4382

প্রাচীন কাল হতে বর্তমান সময় পর্যন্ত প্রতিটা সমাজেই সভ্য ও অসভ্য দুই প্রকারের মানুষই বসবাস করেছে ও করছে। অসভ্য তো সব সময় অসভ্যই কিন্তু কিছু কিছু সভ্য বেশধারী অসভ্যও হরহামেশাই আমাদের চোখে পড়ে। প্রাক আর্য পূর্ব জনগোষ্ঠী তথা অস্ট্রিক, দ্রাবিড়, ভোটচেনীয় ও মঙ্গোলীয়রা যেমন আর্য জনগোষ্ঠীর চোখে অসভ্য ছিল। আজ আমরা আর্য জনগোষ্ঠীকে সভ্য বলি না। সেই সময়ের প্রেক্ষাপটে আর্যরাও কিন্তু সভ্যই ছিল। মিশরের ফারাও সম্রাটরা যে বিশাল বিশাল পিরামিড তৈরি করেছে, সেই সময়ের বিজ্ঞানিরা মমি করার পদ্ধতি আবিষ্কার করেছে, এসবকে সভ্যতার অন্যতম নিদর্শন বলা হয়। কিন্তু এসবের পিছনে যে হাজার হাজার দাসের রক্ত রঞ্জিত শ্রম মিছে আছে তাকে আমরা সভ্যতার কোন ক্যাটগরিতে ফেলবো? তাহলে সভ্যতা কি অসভ্যতারই উলটো পিঠ?
একটা মানুষ কিভাবে সভ্য হয়ে উঠবে প্রতিটা সমাজে তারই চর্চা হওয়া উচিত। সভ্য মানুষ হওয়ার পিছনে প্রধান হাতিয়ার নৈতিক শিক্ষা,মান সম্মত আনুষ্ঠানিক শিক্ষা, সদাচার, আর্থিক স্বচ্ছলতা। অথচ আমাদের সমাজ ঠিক এর উলটো! আমরা অর্থকেই প্রাধান্য দেই। যার অর্থ আছে সেই রাজা তার নৈতিক জ্ঞান যদি শূণ্যের কোঠায়ও হয় তাতেও কোন সমস্যা নেই। আমরা আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে এসবই শেখাচ্ছি! ফলে আমরা পাচ্ছি সভ্যতার মুখোশধারী এক অসভ্য সমাজ। যা আমাদের কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে। সমাজের এই পচন থেকে পরিত্রাণের উপায় কি? এ বিষয়ে নীতি নির্ধারণি মহলের সজাগ হওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়। তা না হলে আমরা শুধু প্রাণী হয়ে বাঁচবো, মানুষ হয়ে নয়। 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × three =