সাংবাদিক শিমুল হত্যা: ৭ আসামির আত্মসমর্পণ

0
2095

ঢাকা প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক ৭ আসামি আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেছে। আসামিরা হলো-শাহজাদপুর উপজেলার নলুয়া গ্রামের হাজী মোকছেদ আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৪০), খাগদিয়ার গ্রামের মৃত খবির উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৫), আন্দার কোঠাপাড়ার আব্দুল জব্বারের ছেলে আজিজুল হক আপন (৫৫), চুনিয়াহাটির মৃত দুলালের ছেলে আবু হানিফ (৪৫), দরগাহপাড়ার মৃত আজাদ প্রমানিকের ছেলে শাহান আলী (৪৫), পুকুরপাড়ের হাজী ইসমাইল হোসেনের ছেলে হুমায়ন আহম্মেদ (৪৭) ও রামবাড়ির মৃত আবুবক্কার সিদ্দিকের ছেলে মাহবুবুল আলম আকন্দ ওরফে সোহেল (৩৬)। আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে আসামিরা উপজেলার আমলি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করে। পরে বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: হাসিবুল হক শুনানী শেষে জামিন নামঞ্জুর করে আসামিদের জেলহাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। উল্লেখ্য, গত ২রা ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মেয়র মিরু’র পিন্টু অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে হাত-পা ভেঙে দেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মেয়রের বাড়ি ঘেরাও করেন। এ সময় মেয়রের পক্ষে দুটি শটগান থেকে গুলি ছোড়ার খবর আসে গণমাধ্যমে। সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল। শিমুল হত্যায় তার স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়রসহ ১৮ জনকে আসামি করে মামলা করলেও এজাহারভুক্ত ও ঘটনার সময়ের ভিডিও ফুটেজ থেকে সনাক্ত করে মোট ৩৬জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। অপরদিকে, ছাত্রলীগ নেতা বিজয়কে মারপিটের অভিযোগে তার চাচা এরশাদ আলী বাদী হয়ে প্রায় একই আসামিদের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। সে মামলাও মেয়রসহ ১৮জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। এছাড়াও ঘটনার কয়েকদিন পরে মেয়রের বাড়িতে হামলার অভিযোগে মেয়রের স্ত্রী বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করলেও তদন্ত শেষে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে পুলিশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 − seven =